বিয়ের বেনারসি বাছাই করার জন্য কয়েকটি টিপস

jamdani

বিয়ে জীবনের এমন এক অধ্যায় যেখানে অনেক ভাবনা-চিন্তার বিষয় থাকে। বিয়ের ক্ষেত্রে সমস্ত কিছু নির্বাচন থেকে শুধু করে যে কোনো কার্য সমাধার জন্য একটা প্রস্তুতি প্রয়োজন। বিয়ের কনে হয় উজ্জ্বল গোলাপের মতো সুন্দর। তাই বিয়ের প্রস্তুতিতে কোনও খুঁতই যেন থাকে। আর যদি হয় বিয়ের বেনারসি তবে তা নির্বাচন বা বাছাই করার সময় বেশ কয়েকটি ব্যাপার মাথায় রাখা জরুরি। আসুন সেই ব্যাপারতে জেনে নেওয়া যাক।

* শাড়ি কেনার আগে যেটা প্রথমেই মাথায় রাখতে হবে সেটা হল বাজেট। মনে রাখবেন বিয়ের বেনারসি আলমারিতে ঢুকলে সহজে বেরোয় না। পাঁচ হাজার থেকে শুরু করে কয়েক লক্ষ টাকার বেনারসি পাওয়া যায় বাজারে। আবেগের বশে কেনার আগে নিজের বাজেট বুঝে নিন। তাহলে পরে আক্ষেপ হবে না।

 

* সঠিক শাড়ি খুঁজে তা নির্বাচন করা জরুরি। তাই যার বা যাদের সঙ্গে আপনি শাড়ি কিনতে যাচ্ছেন, জেনে নিন তারা আদৌ বেনারসি সম্পর্কে ঠিকঠাক জানেন কিনা। বেনারসির কিন্তু অনেক রকমের ফ্যাব্রিক, প্যাটার্ন, ডিজাইন ও জরির কাজ হয়। পারলে নিজেই একটু জেনে বুঝে নেবেন। বিয়ের সিজেন অর্থাৎ শীতকাল না গ্রীষ্মকাল সেটাও কিন্তু শাড়ি বাছার ক্ষেত্রে খেয়াল রাখা জরুরি।

 

* অন্যের পরামর্শ নিন, কিন্তু নিজের পছন্দের শাড়িটাই কিনুন। এমন যেন না হয়, অন্যের পছন্দে কেনা শাড়ি আর আপনার নিজেরই পছন্দ হচ্ছে না! আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজেকে ঠাণ্ডা মাথায় দেখুন। আপনি যদি লম্বা ও ছিপছিপে হন তাহলে চোখ বুজে জমকালো, বড় ডিজাইন, চওড়া পার এবং হালকা রঙের বেনারসি কিনুন। আর যদি উল্টোটা হয়, অর্থাৎ আপনি উচ্চতা যদি কম হয় এবং চেহারা যদি গোলগাল হয় তাহলে হাল্কা রঙের সরু পারের লম্বালম্বি ডিজাইনের বেনারসি কিনুন। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে একবার নিজের গায়ে শাড়িটা ফেলে চোখ বন্ধ করে ভাবুন, এই বেনারসিতে আপনাকে কেমন লাগবে। আশা করি নির্বাচনে ভুল হবে না।

* গায়ের রঙ কিন্তু শাড়ি কেনার ক্ষেত্রে খুব গুরুত্বপূর্ণ। আপনার রঙ যদি একটু ফ্যাকাসে হয় তাহলে গোলাপি, সফট সোনালি, হলুদ অথবা পিচের হাল্কা শেড পরতে পারেন। যদি গায়ের রঙ ফর্সা হয়, উজ্জ্বল লাল, হলুদ ও নীল দিব্যি মানাবে।

 

পোষাক সৌজন্য- কেয়া শেঠ এক্সক্লুসিভ

Trending


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes