jamdani

আট বছরের খুদের উপন্যাস বেস্টসেলার

যদি প্রতিভা থাকে তাহলে সেটি প্রকাশ পাবে যে কোনওভাবেই। সে হোক না আট বছর বা আশি। সেরকমই এক খুদে প্রমাণ করে দিল বিষয়টি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৮ বছর বয়সী ডিলন হেলবিগ প্রমাণ করল এটাই। এত কম বয়সে জিতে নিল সেরা ইয়ং রাইটারের ‘হুডিনি পুরষ্কার’।

এর পেছনে আছে এক মজার ঘটনা। ছোট্ট ডিলন তাঁর ঠাকুমার সঙ্গে একদিন হাজির হয় পাশের লাইব্রেরীতে। হাতে ছিল এক লাল রঙের নোটবুক। যাতে লেখা পুরো একটি উপন্যাস। যার নাম সে দিয়েছে ‘‘The Adventures of Dillon’s Crismis’। ৮৮ পাতার উপন্যাস নিয়ে সে লাইব্রেরিতে ঘোরাফেরা করছিল। একসময় তার মাথায় বুদ্ধি আসে, সে চুপিসারে সেই নোটবুক রেখে আসে চিলড্রেন্স বিভাগে। তাঁর ঠাকুমাও টের পাননি এই ব্যাপার।

দু’দিন পর ঠাকুমাকে সমস্ত ঘটনা জানায় ওই খুদে। চমকে যান ডিলনের কথায়। সঙ্গে সঙ্গে লাইব্রেরিতে পৌঁছন। খোঁজ করেন বইয়ের। এরপর যা তথ্য সামনে এলো, সে বেশ চমকপ্রদ। লাইব্রেরীর খাতায় আগে থেকে বুকিং করা হয়েছে সেই বইয়ের। আর তার তালিকাও বেশ লম্বা। বইটি পড়ার জন্য হিড়িক পরে গিয়েছে পড়ুয়াদের মধ্যে। এরকম যে ঘটবে, এটা আন্দাজ করতে পারেননি ছোট্ট ডিলনের পরিবারও। আর এখন সে ও তার নোটবুক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বেস্ট সেলার হয়েছে!

ডিলনের এই বইতে আছে ক্রিসমাস পালনের বিভিন্ন মজার কথা। তার সঙ্গে ছবি। যেরকমটা আমরা দেখতে পাই গ্রাফিক্স উপন্যাসের পাতায়। অনেক নামীদামী লেখকেরা ডিলনের প্রশংসা করেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় যার প্রশংসা, সমালোচনা ছড়িয়ে পড়লেও ডিলন কিন্তু রয়েছে নিজের জগতেই। যা কিনা কল্পনা করতে বড়োদের হিমশিম খাওয়ার অবস্থা। আট বছরেই যদি ৮৮ পাতার এই চমক হয়, যা বেস্ট সেলার হলো, তা হলে বড় হলে না জানি কী হবে!

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes