হালকা শীতে শ্যাকেট রাখুন আপনার ফ্যাশন লিস্টে

jamdani

বাঙালি যেমন খেতে ভালবাসে তেমন ভালবাসে সাজতেও। আর তার এই ফ্যাশন কনশাসনেস বোঝা যায় বিয়ে বাড়ির সাজ দেখে। অগ্রহায়ণ মাসে শুধু যে বিয়ে বাড়ির ধুম পরে যায় তা নয়। এই সময় হালকা শীতের মিঠে রোদ গায়ে লাগিয়ে কাছে-পিঠে ঘুরতে যাওয়া বা পিকনিক করার জন্যও আদর্শ।

হালকা শীতে যেমন ভারী গরম জামা পরলে গরম অনুভুত হয়। তেমন আবার গরম জামা না পড়লে ঠাণ্ডা লেগে যায়। তাই প্রয়োজন হালকা কোন পোশাকের। যা এই অল্প শীতে ঠাণ্ডা লাগতে দেবে না। আবার গরম তো একেবারেই লাগবে না। এই কারণেই আপনার গায়ে রাখুন শ্যাকেট। এটি হল শার্ট এবং জ্যাকেটের মিলিত রূপ। বিভিন্নভাবে ব্যবহার করা যায় এই পোশাক ফ্যাশন প্রেমিকদের মাঝে এখন খুবই জনপ্রিয়।

শ্যাকেট কি?
শ্যাকেট হল মূলত এক ধরনের শার্ট। যাতে হালকা শীতে আপনি পাবেন জ্যাকেটের আমেজ। ওজনে হালকা এই পোশাক বানানো হয় পাতলা উল, ডেনিম বা চামড়াজাত ফ্যাব্রিকের মতো উপকরণ দিয়ে যা অল্প শীতের জন্য যথাযথ।

কেন শ্যাকেট এখন ফ্যাশনেবল
শ্যাকেট পপুলার তার সার্বিক গ্রহণযোগ্যতার জন্য। এটি যেমন পরতে পারে নারী পুরুষ উভয়। তেমনই আবার যে কোন বয়সে এই পোশাক অনায়াসে পরা যায়। স্বস্তিদায়ক এই পোশাক সব ব্যক্তিত্বের সঙ্গেও খুব সহজেই মানিয়ে যায়।


বিভিন্ন ধরনের শ্যাকেট
১। লেদার ফ্যাব্রিকের শ্যাকেট রাতের পার্টি বা দিনের পিকনিকের জন্য হতে পারে বেশ ভালো পছন্দ।
২। আবার চাইলে প্রিন্টেড শ্যাকেট পরতে পারেন। এটা অনেকটা চেক ঘরানার মতো দেখতে। আটপৌঢ়ে লুক চাইলে ডেনিমের সঙ্গে এই প্রিন্টেড শ্যাকেটের যুগলবন্দীতে আপনাকে খুবই ফ্যাশনেবল দেখাবে ।
৩। শ্যাকেটে থাকে সাইড পকেট যা সাধারনত আপনার শার্টে নেই। ঠাণ্ডাতে হাত দুটো পকেটে রেখে যেমন উষ্ণতা অনুভব করবেন। তেমনই আপনি হয়ে উঠবেন ফ্যাশন সেন্সিবল।

৪। মোটা ফিতা দেওয়া শ্যাকেট ফ্যাশনে ইন। বন্ধ গলার টপ, চাপা জিনস বা ঢোলা ট্রাউজারের সঙ্গে এই শ্যাকেট হিট কম্বিনেশন।

৫। ফান লুকের জন্য মালটি কালার শ্যাকেট রাখুন আপনার টপ মোস্ট পছন্দ। বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়ার সময় এই ধরনের শ্যাকেট হতে পারে আপনার আইডিয়াল চয়েস।

Trending


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes