jamdani

লক্ষ্মীর ঘোটকে আগমন

বাড়িতে খুদে সদস্যের আগমনের খবর শুনলেই সকলের মন ভালো হয়ে যায়। তবে লজ্জার বিষয় হল, ২১ শতাব্দীতে দাঁড়িয়েও পুত্র না কন্য সন্তান হল- সেই নিয়ে মাথা ঘামায় এমন অনেক পরিবারই রয়েছে। বাড়িতে কন্যসন্তান জন্ম নেওয়া মানে যেন লজ্জাজনক বিষয় তাদের কাছে। এমন নিম্নমানের মানসিকতা সম্পন্ন লিঙ্গবৈষম্যের সূত্রধারদের মুখে ঝামা ঘষলেন আহমেদাবাদবাসী আসরানি পরিবার। পরিবারে জন্ম নেওয়া কন্যাসন্তানকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি আনতে করলেন রাজকীয় আয়োজন।

এবার একটু খুলে বলা যাক। আহমেদাবাদের হাতকেশ্বরের বাসিন্দা নরেন্দ্র আসরানি। তার বাড়িতে গত ২৯ জানুয়ারি জন্ম নেয় পরিবারের একমাত্র কন্যাসন্তান। বাড়ির সদস্যদের মতে, এর আগে আসরানি পরিবারে অনেকেই বাবা-মা হয়েছেন। তবে কন্যসন্তান কখনও জন্মায়নি। দীর্ঘ ২০ বছর পর পরিবারে কন্যাসন্তানের জন্মে আপ্লুত সবাই। হাসপাতাল হতে সুখবর আসতেই সদ্যোজাতর দাদু আনন্দে আত্মহারা। খুশিতে সকলের সঙ্গে পরিকল্পনা করতে থাকেন, লক্ষ্মীকে ঘরে আনবেন কীভাবে? আর করলেনও এলাহি আয়োজন। ঘোড়ার গাড়ি নিয়ে পৌঁছে যান হাসপাতালের সামনে। ওই গাড়িতেই সন্তানকে নিয়ে চড়ে বসেন সদ্যোজাতর মা-বাবা এবং তিনি। ঘোড়ার গাড়ির সঙ্গে ছিল ব্যান্ড পার্টির আয়োজনও। খুশিতে নাচতে নাচতে বাড়ি ফেরেন পরিবারের সকল সদস্য। যা দেখতে রীতিমতো ভিড় জমে যায় রাস্তায়।

সদ্যোজাতর বাবার কথায়, “লিঙ্গবৈষম্য অনেকাংশেই দূর হয়েছে ঠিকই। তবে কন্যাসন্তানের জন্ম নিয়ে এখনও অত্যাচার সহ্য করতে হয় বহু মাকে। এটা তার বিরুদ্ধেই একটা বার্তা দেওয়ার চেষ্টা। কন্যাসন্তান কখনওই পরিবার বা মা-বাবার বোঝা নয়। বাবা হওয়া খুবই আনন্দের। তবে একটি মেয়ের বাবা হতে পেরে দ্বিগুন আনন্দ পেয়েছি

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes