jamdani

জিভ পুড়েছে চায়ে

আয়েশ করে চায়ে চুমুক দিয়েছেন। ব্যস! জিভ গেল পুড়ে। কী করবেন এরকম সময়ে-

  • জিভ পুড়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এক টুকরো বরফ রেখে দিন মুখে। অথবা বরফ জল দিয়ে কুলি করুন বার বার। খানিকটা হলেও স্বস্তি পাবেন।
  • কাছে পিঠে অ্যালোভেরা গাছ থাকলে তা থেকে জেল সংগ্রহ করুন এবং পরিমাণ মতো মুখের ভিতরে রেখে দিন প্রায় ২৫ মিনিটের মতো। সারা দিনে দু’বার করা যেতে পারে। তবে বাজার থেকে কেনা অ্যালোভেরা জেল এ ক্ষেত্রে একদম নয়।
  • জিভ পুড়ে গেলে একটু গুঁড়ো দুধ আর চিনি জিভের পোড়া অংশে লাগিয়ে রেখে দিন। জ্বালাভাব কমবে দ্রুত।
  • অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল উপাদান থাকে টক দইতে। ঠান্ডা টক দই খেলে জ্বলুনি থেকে মুক্তি পাবেন এবং জিভ ঠান্ডা হতে থাকবে ক্রমশ।
  • একই সঙ্গে মধুতেও রয়েছে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল উপাদান। জ্বালা ও পোড়া ভাব দূর করতে তা কাজে আসে। তাই জিভ পুড়ে যাওয়ার পরে মধু লাগিয়ে নিতে পারেন। সঙ্গে ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণও আটকে যাবে।
  • তরল ও ঠান্ডা খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। খুব বেশি চিবিয়ে খেতে হয়, এ রকম খাবার এড়িয়ে চলাই ভাল! কাঁচা লঙ্কা আর কোল্ড ড্রিঙ্কস একদম নয়।
  • ফাইবার যুক্ত খাবার পুড়ে যাওয়া অংশের উপরে পাতলা প্রলেপ তৈরি করে। এতে মুখের জ্বালা ভাব অনেকটা দূর হয়। তাই ফাইবার সমৃদ্ধ খাবারেও রয়েছে স্বস্তির খোঁজ।

তবে নিতান্তই যদি খুব বেশি ব্যথা বা জ্বালা ভাব থাকে, অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। খেয়াল রাখবেন, চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনও রকম মলম জাতীয় ওষুধ মুখের ভিতরে লাগাবেন না।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes