jamdani

কবিতা।।বৃষ্টি এবং তুমি।। অজিত বাইরী

তুমি কি খোঁপা ভেঙে নেমেছ উঠোনে

বৃষ্টিতে ভিজবে বলে?

বৃষ্টি চোখে, মুখে, চিবুকে, গ্রীবায়-

কতকাল পর ফিরেছে কিশোরী বয়েসে।

দ্রাঘিমার নীচ থেকে উঠে এসে

মৌচাকের মতো জমাট বেঁধেছে উড়ো-মেঘ।

আয় বৃষ্টি ঝেঁপে, ধান দেব মেপে-

তোমার বিভঙ্গ শরীর নাচের মুদ্রা।

টিপটিপ…টিপটিপ…বৃষ্টি শালুক পাতায়

বৃন্তে নুয়ে আছে কোরক, ফ্রকের আড়ালে

যেন উদ্ভিন্ন যৌবন কী মোহন

লাজুকতায় মুড়ে রেখেছে শরীরী প্রগলভতা।

 

তুমি এসে দাঁড়িয়েছ উঠোনে, পাখির

ডানার মতো ছড়িয়ে দিয়েছ দু’হাত ;

ঐ হাত ছাঁচতলায় ভাসিয়েছিল কাগজের নৌকো,

ঐ হাত আলগোছে ছুঁয়েছিল কিশোরের হাত।

 

সে মধুর স্মৃতি ওষ্ঠ প্রান্তে এঁকে দিল

বিদ্যুতের ঝিলিক, সেদিনের সাহস নেই আজ-

এলোচুল ঝাঁপিয়ে পড়েছে খোলা পিঠে!

‘এই ব্ষ্টি থেমে যা, নেবুপাতা করমচা-‘

 

তুমি কি দৌড়ে দৌড়ে ফিরতে চাইছ কৈশোরে?

আকাশ ভেঙে বৃষ্টি নামল, বৃষ্টি উঠোনে-

তোমার ভিজে চুল থেকে ঝরে জল…

তোমার ভিজে চুল থেকে ঝরে জল…

প্রকাশিতঃ অদ্বিতীয়া জুলাই ১৪২৩ (২০১৬)

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes