jamdani

ওরা যা বললেন

কেটে গেছে প্রায় ২৪ ঘন্টা। ফুড়িয়েছে জীবনের সব যুক্তি তক্ক আর গপ্পো। ২০১১-র আগে পরিবর্তনপন্থীদের অন্যতম মুখ চলে গেলেন অনাড়ম্বর ভাবেই। তাঁর ইচ্ছাপত্র অনুযায়ী সবার আড়ালে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। তাঁরই স্মৃতিচারণায় মুখ্যমন্ত্রী থেকে নাটকের জগতের পরিচিত নামের প্রতিক্রিয়া নিয়েই অদ্বিতীয়ার শ্রদ্ধার্ঘ্য।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়- বাংলা নাট্যজগতের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব এবং প্রখ্যাত মঞ্চশিল্পী শাঁওলি মিত্রের  প্রয়াণে আমি গভীর ভাবে শোকাভিভূত বোধ করছি। প্রবাদপ্রতিম শম্ভু মিত্র ও তৃপ্তি মিত্রের কন্যা শাঁওলি মিত্র বাংলা অভিনয় জগতে মহীরুহ ছিলেন। নাথবতী  অনাথবৎবাকথা অমৃতসমানএর মতো সৃষ্টিকর্ম বাংলার  লোকমানসে  চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। শাঁওলি মিত্র আমার বহুদিনের সহযোগী ছিলেন। সিঙ্গুরনন্দীগ্রাম আন্দোলনে তিনি আমার সঙ্গে একসাথে ছিলেন। আমি রেলমন্ত্রী থাকার সময়  তিনি আমার সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করেছিলেন।  পরে আমরা  দায়িত্বে এলে কিছুদিন পর তিনি বাংলা একাডেমির সভাপতি হন এবং দায়িত্বের সঙ্গে মূল্যবান কাজ করেন।

দেবশঙ্কর হালদার এত কাছ থেকে ওঁনাকে দেখেছি, কিন্তু অদ্ভুত একটা সম্মানের দূরত্ব ছিল। অথচ সেই দূরত্বটা উনি ঘুচিয়ে দিতেন ওঁনার অভিনয় দিয়ে। 

সোহিনী সেনগুপ্ত – আমার কাছে এটা খুব অবাক করা ঘটনা। কিছুদিন আগেই ওঁনার সঙ্গে কথা হয়েছিল। যখনই দেখা হত, কখনও বলতেন না যে কী অসুবিধা। বলতেন খুব একটা ভালো নেই। আমি বলেছিলাম কোভিডের পরিস্থিতি মিটলে তোমার কাছে যাব। মা চলে যাওয়ার পর আমার সঙ্গে অনেক কথাই বলেছিল। ছোটবেলায় যখন গ্যালিলিওর জীবন হত, তখন মা আমাকে শাঁওলি মাসির জিম্মায় দিয়ে যেত। 

চৈতি ঘোষাল মাথায় আসছে না কোথা থেকে শুরু করব। কারণ, আমার ঠিক মতো জ্ঞান হওয়ার আগে থেকে শাঁওলি দির সঙ্গে আলাপ। আমি যখন ডাকঘরে অমল করি তখন আমার সাড়ে ৫ বছর বয়স। শাঁওলি দি আমাকে কোলে করে স্টেজে নিয়ে বসিয়ে দিত এবং মাঝখানে বিরতিতে দুধ আর চকোলেট খাওয়াত। প্রথম শুরুটা হয়েছিল, রেডিও নাটকে উনি অনন্যা ছিলেন।কোনিযে ছবি এত বিখ্যাত, সেই কোনির প্রথম রেডিও নাটকে অভিনয় করেছিলেন শাঁওলি মিত্র। সে এক অসামান্য অভিজ্ঞতা।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes