jamdani

উত্তর দেবে উত্তরাধিকারীরাই

অনির্বাণ গুহ| 
মঙ্গেশকর পরিবারের সাংগীতিক উত্তরাধিকার তাহলে কাদের কাঁধে?
একটা পর্ব শেষ, রাষ্ট্রীয় শোকের দু’দিন কেটে গেছে। সরস্বতীর সুরের রেশ তো থাকবেই, বলা চলে আবহমান চলবে। স্বাভাবিক নিয়মেই সেদিনটাও একদিন আসবে। কিন্তু আশা ভোঁসলের পর? আর শুধু আশা ভোঁসলের কথাই কেন, মঙ্গেশকর পরিবারের সারণীতে পর পর নামগুলো ভাবুন তো! লতা, ঊষা, আশা, মীনা এবং হৃদয়নাথ। মঙ্গেশকর পরিবারের উত্তরাধিকারের এই ভার কাঁধে তুলে নেওয়া বলা বাহুল্য বোধহয় এতটা সহজও নয়। মঙ্গেশকর পরিবারের দ্বিতীয় ও তৃতীয় প্রজন্ম ও হয়তো এই উত্তরটাই খুঁজছে, যেমন খুঁজছে গোটা দেশ।
সবার প্রথমে যে নামটা উঠে আসবে তা নিয়ে সম্ভবত লতাজিও কোনও দ্বিমত পোষণ করতেন না। হৃদয়নাথ মঙ্গেশকর-এর কন্যা রাধা মঙ্গেশকর। যার হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সঙ্গীত শুনে মুগ্ধ হতেন লতা মঙ্গেশকর স্বয়ং। ২০০৯ সালেই সকলের প্রশংসা কুড়িয়েছে রাধার একক শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের সংকলন ‘নাভ মাঝে শামী’। পিসির মতো রাধাও হিন্দি ও মারাঠী গানের পাশাপাশি আঞ্চলিক ভাষায় গান গেয়েছেন, তার রবীন্দ্রসঙ্গীতও মুগ্ধ করেছে সকলকে। ওদিকে আশা ভোঁসলের পুত্র আনন্দ ভোঁসলের কন্যা জনাই ভোঁসলেও ইতিমধ্যে তার জাত চিনিয়েছেন। মঙ্গেশকর পরিবারের তৃতীয় প্রজন্মের এই সদস্যার গানের জগতে আত্মপ্রকাশ তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের নিয়ে তৈরি দেশের প্রথম গানের দল ‘সিক্স প্যাক’-এর সঙ্গে কাজের মধ্যে দিয়ে এখন থেকেই চর্চায় জনাই-এর দক্ষতা, যা নাকি অনেকটা তার ঠাকুমার মতোই।
আর একজনের কথা না বললেই নয়। মাত্র পাঁচ বছর বয়েসেই মীনা মঙ্গেশকরের কন্যা রচনা খাদিকর-এর সংগীতে তালিম শুরু। রচনার প্রথম অ্যালবাম ছোটদের কাছে খুব জনপ্রিয় হয়, ‘মারাঠি বাল গীত’ নামের এই অ্যালবাম বহুজন প্রশংসিত। শুধু তাই নয়, লতা মঙ্গেশকর ও আশা ভোঁসলের সঙ্গে একই মঞ্চে গাওয়ার অভিজ্ঞতাও রয়েছে রচনার। কলকাতাতেও একবার ঘুরে গেছেন রাহুল দেব বর্মন ও আশা ভোঁসলের সঙ্গে শিশু শিল্পী হিসেবে।
যে প্রশ্ন মানুষের মনে, তাহলে কাদের বইতে হবে লতা-আশার সাংগীতিক উত্তরাধিকার? সময়ের অপেক্ষা, উত্তর দেবে উত্তরাধিকারীরাই।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes