jamdani

বিয়ের তারিখ ঠিক হয়ে গিয়েছে? চটপট সারুন এই কাজগুলো

বিয়ের তারিখ ঠিক হয়েছে কি? তাহলে কিন্তু আর অপেক্ষার সময় নেই। বিয়ে মানে শুধুই আনন্দ, এরকম যদি ভেবে থাকেন তবে কিন্তু খুবই ভুল ভাবছেন। বিয়ের পর সংসারে কী করবেন, সেসব না হয় পরে ভাবা যাবে। কিন্তু বিয়ের আগে যে কতরকম প্রস্তুতি নিতে হবে জানেন? আর বিয়ে ঠিক হওয়ার পরই সেই কাজ করতে হবে। রীতিমতো ভালো প্ল্যানিং করা দরকার। বিয়ের প্ল্যানিং করার সময় কী কী করতে হবে আসুন দেখে নেওয়া যাক…

  • বিয়ে বাড়ি ঠিক করে ফেলতে হবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব- এখন আর আগের মতো দেরি করা যাবে না। আগে যেমন বিয়ের এক মাস আগেও বিয়ের বাড়ি ঠিক করা যেত, এখন আর সেসব দিন নেই। এখন অন্তত ৮ মাস আগে বিয়ের বাড়ি ভাড়া করে ফেলতে হবে। তাহলে বিয়ের তারিখ ঠিক হওয়ার পরেই কয়েকটি বিয়ে বাড়ির লিস্ট বানিয়ে ফেলুন। আপনার পছন্দসই বাড়িগুলোর ভাড়া নিয়ে জেনে নিন। সেই হিসেবে প্রতিটা বাড়ির মালিকের সঙ্গে কথা বলবেন। এবং তার মধ্যে বাড়ি ঠিক করে ফেলুন।
  • মেকআপ আর্টিস্টের সঙ্গে কথা বলুন- আপনি যেদিন বিয়ে তারিখ ঠিক করেছেন, সেদিন কিন্তু শুধুই আপনি বিয়ে করছেন না। ওই একই দিনে কিন্তু আরও অনেকেই বিয়ে করছেন। তাই মেকআপ আর্টিস্ট আপনার জন্য়ই যে শুধু অপেক্ষা করে থাকবেন তা নয়। তাই আজই মেকআপ আর্টিস্টের একটা তালিকা বানিয়ে ফেলুন। সেই তালিকা অনুযায়ী প্রত্য়েকের সঙ্গে কথা বলুন। আপনার বাজেট ও পছন্দ অনুযায়ী আপনার বিয়ে ও রিসেপশনের দিনের জন্য মেকআপ আর্টিস্টকে অগ্রীম দিয়ে বুক করে নিন।
  • কোথায় শপিং করবেন ঠিক করে নিন-বিয়ের শপিং কিন্তু চারটি কথা নয়। অনেক কিছু কিনতে হয়। বিয়ের জামা কাপড়, শাড়ি কেনা থেকে শুরু করে মেকআপের প্রোডাক্ট কেনা, তত্ত্বের জিনিস কেনা, অনেক কিছু আপনাকে কিনতে হবে। তাই প্রথমেই একটা লিস্ট বানাবেন। কোনদিন কোনটা কিনবেন, সেটা ঠিক করে নিন। সেই তারিখ অনুযায়ী নির্দিষ্ট দোকানে গিয়ে বিয়ের কেনা কাটা সেরে ফেলুন।
  • ফোটোগ্রাফারের সঙ্গে কথা বলুন- বিয়ে তো আর বারবার করছেন না! বিয়ে করছেন একবারই! তাই এইদিনের প্রতিটা মুহূর্ত বাঁধিয়ে রাখা চাই। আপনার বাজেট অনুযায়ী আপনার পছন্দের ফোটোগ্রাফারের একটা তালিকা বানিয়ে নিন। তারপর সেই তালিকা অনুযায়ী প্রতিটি ফোটোগ্রাফারের সঙ্গে কথা বলুন। আপনার হবু বরের সঙ্গে আলোচনা করে নিয়ে আপনি ফোটোগ্রাফারকে বুক করে নিন।
  • ডেকরেটর্স ও ক্যাটেরার্সের সঙ্গে কথা বলুন- আপনার বিয়ের দিন ঠিক হওয়ার পরেই প্রথমে বিয়ের বাড়ির সঙ্গে কথা বলে নিন। বিয়ে বাড়ি ঠিক হয়ে গেলেই এরপর ক্যাটেরার্সের ও ডেকরেটর্সের সঙ্গে কথা বলে নেবেন। এদেরও অগ্রীম দিয়ে বুক করে নিতে হবে। আপনার বাজেট অনুযায়ী প্লেট ঠিক করে নিন। এবং সেই মতোই আপনার ক্যাটেরার্সের সঙ্গে কথা বলুন।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes