jamdani

ইচ্ছে ছিল হলিউডে কাজ করার!

তাঁর ডায়েরির পাতায় এখনও তাঁর মৃত্যু নিয়ে সেরকম কিছু সূত্র পাওয়া যায়নি। তবে ইচ্ছের আভাষ পাওয়া গেল সম্প্রতি। হলিউডে কাজ করা ছিল স্বপ্ন।

২০২০ সালের ১৪ জুন। কোভিড-১৯ এর কারণে সারা বিশ্ব জুড়ে এক মারণ পরিবেশ। তার মধ্যেই খবর এলো বলিউডের এক তরতাজা ৩৫ বছরের অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত ‘আত্মহত্যা’ করেছেন। ভারত সহ বিশ্বের সমস্ত অনুরাগীদের মধ্যে শোকের ছায়া তখন।

২১ শে জানুয়ারি ছিল সেই প্রাণবন্ত অভিনেতার জন্মদিন। শুভেচ্ছায় ভরে যাছিল সোশ্যাল মিডিয়ার প্লাটফর্ম। একের পর এক স্টার থেকে শুরু করে পরিবারের সদস্যরা, প্রিয় মানুষটিকে ছবিতে ভিডিওতে স্মরণ করেছেন এদিন সকাল থেকেই। সুশান্ত সিং রাজপুত মানেই প্রাণচঞ্চল এক উচ্ছ্বাস। সুশান্ত মানেই সিনে দুনিয়ার হার্টথ্রোব। যার উপস্থিতিতে এক কথায় মন দিয়ে থাকেন সকলেই। তাঁর হাসিতে আজও বিদগ্ধ স্মৃতি মলিন, সকলেই তাঁকে মনে রেখেছেন নানান ছবির মধ্যে দিয়ে, নানান চরিত্রের মধ্যে দিয়ে। সেই স্টারকেই জন্মদিনে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন ভক্তমহল। সুশান্ত সিং রাজপুত থাকলে তাঁর বয়স হত ৩৬ বছর।

পবিত্র রিস্তা থেকে উঠে আসা সুশান্তের ডায়েরিতে লেখা ইচ্ছেগুলোর মধ্যে অন্যতম ছিল হলিউডে অভিনয় করার। এছাড়া অ্যাস্ট্রোনমি নিয়ে ভীষণ উৎসুক ছিলেন সুশান্ত। ভবিষ্যতে কাজও করতে চেয়েছিলেন এ বিষয়ে।

এদিন সকালেই সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিং রাজপুত সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ কিছু দেখা ও দেখা ভিডিও কোলাজ শেয়ার করে, জানান সুন্দর সেই সংমিশ্রণ, জন্মদিনের অনেক শুভেচ্ছা ভাই। এই ভিডিওতে সেলেব দুনিয়ার পোস্ট ভরতে থাকে। একজন শিল্পী, একজন অভিনেতা হিসেবে যে কতটা ভালো মনের মানুষ ছিলেন, নিজের কাজ নিয়ে যে ঠিক কতটা দক্ষ ছিলেন, তা পরতে-পরতে উঠে আসে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ব্যক্তির মুখ থেকে।

গত দু বছরে কেবলই সুশান্তের মৃত্যু, অবসাদ, মাদক এইসব দেখেছে সকলে। কিন্তু এর বাইরে যে সুশান্ত এক বিশাল জগত নিয়ে ছিল, প্রতিটা চরিত্রে যে সুশান্ত আজও জীবিত তা সেলিব্রেশনের কথা ভুলে গিয়েছে অনেকেই। প্রায় দু বছর হতে চলল সুশান্ত আর নেই, এবার তাঁর সেই কঠোর পরিশ্রম-সৃষ্টির কথাই তুলে ধরলেন কেদারনাথ ছবির লেখক কণিকা ধিলন। কণিকার কথায়, তিনি সুশান্তকে যত টুকু দেখেছেন, একটা গল্পকে দাঁড় করাতে তিনি ঠিক যতটা পরিশ্রম করে থাকেন, তাঁর থেকে অনেকগুণ বেশি পরিশ্রম করতেন সুশান্ত। প্রতিটি চরিত্রেই একটুকরো সুশান্তকে পাওয়া যায়। ছবির মধ্যে প্রাণ ঢেলে অভিনয় করতেন তিনি, একজন অভিনেতার যতটা করার কথা, তার থেকেও বেশি নিজেকে উজার করে দিতেন, হোমওয়ার্ক করতেন, যা একটি ছবিকে এক অন্য মাত্রায় পৌঁছে দিত।

 

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes