jamdani

ফ্যাশনে জমুক শীত

শীতকাল এলেই চারিদিকে শুরু হয়ে যায় বিয়ে বাড়ির ভিড়। এমন লোক খুঁজে পাওয়া মুশকিল যে এই সময় একটাও বিয়ে বাড়ির নেমতন্ন পায়না। একদিকে ঠাণ্ডা আর অন্যদিকে বিয়ে বাড়ির প্রপার ফ্যাশন স্টেটমেন্ট মেইন্টেন করা! এই দু’দিক সমানভাবে ব্যালান্স করার খুব প্রয়োজন। শীতকালে সাজতে গিয়ে ঠাণ্ডা লেগে অসুস্থ হলে বিপত্তি। তাই বলে অনেক শীতবস্ত্র এক সঙ্গে জড়িয়ে নিলেও তো হয়না! তাই দরকার প্রপার গাইডলাইন। যাতে পোশাকের সামান্য রদবদলেই নতুন রূপে সকলের নজর কাড়তে পারেন আপনি। সঙ্গে ফ্যাশনের ঢেউয়ে নিজেকে শীতে ঠান্ডা লাগার হাত থেকেও রক্ষা করতে পারবেন। অতএব, সাজো শীতে।

মেয়েদের ফ্যাশান
আপনি কি মনে করেন যে, বিয়ে বাড়ির আল্টিমেট পোশাক হওয়া উচিত শাড়ি? আর ভারী শাড়ির কথা মনে আসলেই সবার চোখের সামনে বেনারসির ছবি ফুটে ওঠে। কিন্তু বেনারাসি, সে তো বিয়ের কনের জন্য রিজারভ। তাহলে আপনি বেছে নিন, কাঁথা স্টিচ বা পশমিনা শাড়ি। এই ধরনের শাড়ি অন্যান্য শাড়ির তুলনায় একটু ভারী হয়। যা আপনাকে ঠাণ্ডা থেকে বাঁচাবে। আবার এর সুতোর কাজে দেখতেও চমৎকার। সঙ্গে রাখুন সুন্দর ডিজাইন করা শাল। শাড়ির আঁচলের উলটো দিকে নিন শাল। আবার লম্বা ঝুলের সোয়েটারও পরতে পারেন।

শাড়িতেই নারীকে শ্রেষ্ঠ মানায়। এমন মিথ যদি ভাঙতে চান, তাহলে পড়তে পারেন কাফতান ড্রেস। এই পোশাক যেমন পড়তে সুবিধে, আবার তেমন দেখতেও রুচিপূর্ণ। শীতকালের বিয়ে বাড়ির জন্য বেছে নিতে পারেন উলের কাফতান। ঠাণ্ডা বাঁচিয়ে অবশ্যই উষ্ণতা অনুভব করবেন। আর জাঙ্ক জুয়েলারির সঙ্গে রিসেপসন পার্টিতে আপনাকে এই সাজে দেখাবে আকর্ষণীয়।

এর পাশাপাশি সাজতে পারেন চুড়িদারেও। জমকালো আনারকলি চুড়িদার বিয়ের বাড়ির জৌলুশে আলাদা মাত্রা যোগ করে। হেভি জুয়েলারির সঙ্গে এই পোশাকে বিয়ে থেকে রিসেপশন, সবেতেই আপনাকে নিঃসন্দেহে সুন্দর দেখাবে।

এই ওয়েডিং সিজনে বিকল্প হিসেবে বেছে নিতে পারেন ভেলভেটের গাউন। একরঙা ফুলহাতা গাউন, সঙ্গে মানানসই ডায়মন্ড নেকলেস আর কানের দুল। ইচ্ছে হলে পরতে পারেন ভেলভেটের শাড়িও। কিম্বা রেশমের লেহঙ্গা। এই সমস্ত পোশাকেই বিয়েবাড়িতে আপনাকে আকর্ষণীয় দেখাবে। আর শীত থেকে অবশ্যই আপনি বেঁচে যাবেন উইথ প্রপার স্টাইল।

পুরুষদের ফ্যাশন
মেয়েদের ফ্যাশনের পাশাপাশি এখন পুরুষদের ফ্যাশন যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। ছেলেরা ডিজাইনার পাঞ্জাবির সঙ্গে নিতে পারেন কাজ করা শাল। আর যদি মনে করেন সাধারণ ড্রেসই পড়বেন। তাহলে রোজকার শার্টের ওপর পরে নিন জহর কোট। বিভিন্ন ফ্যাব্রিকে পাওয়া যায় এই কোট আপনার ফ্যাশনে আলাদা স্টাইল স্টেটমেন্ট এনে দেবে। শার্ট ছাড়া পাঞ্জাবি বা শেরওয়ানির সঙ্গেও জহর কোট খুব ভালো মানায়। তাছাড়া, ছেলেদের জন্য স্যুট বা ব্লেজার শীতকালে বিয়ে বাড়ির জন্য সব সময় সেফ অপশন।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes