jamdani

এই ভাবেই যত্ন নিন আপনার ভালবাসার প্রতীকের

ওয়েডিং রিং! এর সঙ্গে যেন নব দম্পতির এক অন্য রকমের সেন্টিমেন্ট জড়িয়ে থাকে। তাই অনেক সময় যদি জানতে চাওয়া হয় আপনার বিবাহিত জীবনের স্পেশাল গিফট কোনটি? বেশিরভাগ ক্ষেত্রে উত্তরটা হয়, ওয়েডিং রিং। সেক্ষেত্রে এই স্পেশাল জিনিসটি কেনার আগেও চলে বেশ পরামর্শ। তারপর শুরু হয় ডিজাইন বাছাই পর্ব। সবশেষে দোকান ঘুরে কেনাকাটা এবং শুভক্ষণে সেটি আপনার ভালবাসার মানুষটিকে উপহার স্বরূপ আঙুলে পরিয়ে দেওয়া।

তবে বিয়ের পর সময়ের সঙ্গে সঙ্গে স্পেশাল উপহারটির দ্যুতি কিছুটা হলেও যেন কমে আসে প্রতিদিন ব্যবহারের ফলে। সেক্ষেত্রে মন খারাপের কিছু নেই। এই প্রবলেমেরও আছে সলিউশন। নীচে রইল তারই টিপস।

রিঙের অবস্থা খেয়ালে রাখুন

সবসময় নজরে রাখুন আপনার ওয়েডিং রিং ঠিক অবস্থায় আছে কিনা। ডায়মন্ড সঠিক পজিশনে আছে। নাকি ঢিলে হয়ে গেছে। এমন কিছু হলে সঙ্গে সঙ্গে আপনার জুয়েলারের সাথে যোগাযোগ করুন।

রিং কিভাবে পরিষ্কার করবেন

লোশান বা ক্রিম ব্যবহারের ফলে, আপনার রিং অনেক সময় ডাল হয়ে যায়। তাই একে রেগুলার পরিষ্কার করুন। একটি পাত্রে উষ্ণ গরম জল নিন এবং তাতে মেশান মাইলড লিকুইড ডিটারযেন্ট। এবার স্ফট টুথ ব্রাশ দিয়ে হালকা ভাবে ঘষে নিন আপনার রিং। ট্যাপ ওয়াটারের জলে ধুয়ে ফেলুন। আর নরম সুতির কাপড়ে রিং মুছে নিন। আপনার রিং তার হারিয়ে যাওয়া দ্যুতি ফিরে পাবে।

রিং কতদিন অন্তর পরিষ্কার করবেন

নানা কাজের জন্য আপনার ফিঙ্গের রিং ধুলো বা ময়লা একত্র হয়। এতে তার আভা হ্রাস পায়। তাই প্রতি দুদিনে অন্তত একবার আপনার রিং পরিষ্কার করুন।

এড়িয়ে চলুন আলট্রাসনিক ডায়মন্ড ক্লিনার

এই পদ্ধতিতে জলের সঙ্গে ক্লিনজার মিশিয়ে, ভাইব্রেশনের মাধ্যমে আপনার হীরের হারিয়ে যাওয়া জৌলুশ ফেরানো হয়। তবে এইভাবে পরিষ্কারের এড়িয়ে চলাই ভালো। এতে হীরে হুক থেকে আলগা হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এবং পরবর্তী পর্যায় তার লংজিভিটি হ্রাস পায়।

প্রফেশনাল দ্বারা যত্ন নিন

নিজের সখের জিনিসের যত যত্নই আপনি নিন না কেন, তবু প্রফেশনাল হেল্প নেওয়া সবচেয়ে সেফ। এতে আপনার হীরে থাকবে সুরক্ষিত এবং লাভ করবে দীর্ঘায়ু। প্রত্যেকবার নতুন দোকান না গিয়ে, বেছে নিন একটি সার্ভিস সেন্টার। আপনার সমস্যা ও ফিউচার এক্সপেক্টান্সি বোঝাতে সুবিদে হবে।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes