jamdani

মিষ্টি! তাও আবার ১৬ হাজার টাকা

মিষ্টি কথায় ভুলিয়ে দেওয়ার মানুষ আমরা চারদিকে দেখতে পাই। আবার ‘মিষ্টি কথার ছুরি’ প্রবাদটাও শুনেছেন নিশ্চয়ই। তবে মিষ্টির মতো লোভনীয় এই জিনিষ কারোর অপছন্দ, এটা কেউ বলতে পারে না। আর বাঙালির পাতে মিষ্টি না হলে যে চলেই না। অন্যদিকে শীতকাল মানেই নলেন গুড়ের সন্দেশ, রসগোল্লা হলে তো কথাই নেই। কিন্তু সে কথা থাক। কত দামী মিষ্টি হতে পারে, সে নিয়ে তুমুল ঝগড়া লাগতেও পারে। তাই বলে প্রতি কিলোগ্রাম মিষ্টির দাম ১৬ হাজার টাকা! কি বিশ্বাস হচ্ছে না তো। হ্যাঁ সত্যিই এমনটাই পাওয়া যাচ্ছে দিল্লিতে ।

আর পাঁচটা মিষ্টির মতো দেখতে হলেও এ যে সে মিষ্টি নয়। এ মিষ্টি যে সোনার মতো। সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এই ১৬ হাজারি মিষ্টি নিয়ে বেশ শোরগোল। কি কি দিয়ে তৈরি বলি তবে, গোল্ড প্লেটেড এই মিষ্টির মধ্যে রয়েছে কাজু, পেস্তা, বাদাম, কেসর, আনারসের দানার সঙ্গে ২৪ ক্যারট সোনার পরত।

তবে এই মূল্যবান মিষ্টির এক ইতিহাসও রয়েছে। দিল্লির মৌজপুরের সগুন সুইটসে তৈরি হয় এই মিঠাই। প্রথমবার এক গ্রাহকের অর্ডারে বানিয়েছিলেন। মিষ্টির দোকানের মালিক মুকেশ বনসল ও নিতিন বনসলের বক্তব্য, ‘বিশেষ ধরনের মিষ্টির অর্ডার নিয়ে এসেছিলেন এক গ্রাহক। তাঁর দাবি শুনে আমরা আকাশ থেকে পড়েছিলাম। তার পর ভাবলাম, একবার চেষ্টা করে দেখলেই তো হয়’।  এক মাস লেগেছিল এই মিষ্টি তৈরি করতে। তাঁদের পরিশ্রম সার্থক হয়েছিল। এরপরই সৃষ্টি হয় এই নতুন মিষ্টির।

নিতিনের কথায়, ‘এত দামি একটা মিষ্টি। বিক্রি হবে কিনা, সেটা বুঝতে পারছিলাম না। আশঙ্কা একটু ছিলই’। তবে অচিরেই জনপ্রিয়তা পায় এই মিষ্টি। অনেক মানুষ পছন্দ করেন। এক কেজি মিষ্টিতে মাত্র ২০টি পাওয়া যায়। এক একটা মিষ্টির দাম ৮০০ টাকা। তবে এখানেই থেমে নেই সগুন সুইটস। তবে এর চেয়েও দামি মিষ্টি তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিতে চান তাঁরা। তারই পরীক্ষানিরীক্ষা চলছে রসুইঘরে।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes