jamdani

সুস্থ থাকতে রোজ খান এই ফলটি

আমাদের বাড়ির পাশের দোকানেই আপেল, আঙুর, কমলালেবু ও নাশপাতির মতো দেশি ফলের পাশাপাশি বিদেশি ফলও স্থান করে নিয়েছে। এর মধ্যে ব্ল্যাকবেরিও একটি। ফল খেতে যারা ভালবাসেন, তারা অ্যান্টি-অক্সিডেন্টে ভরপুর বেরি জাতীয় ফল খেতে পছন্দ করেন। যেমন-স্ট্রবেরি, ব্লু-বেরি, ব্ল্যাকবেরি। ব্ল্যাকবেরি ত্বকের কোষের ক্ষতি হওয়া রোধ করে। এছাড়া ‘রোসসিজ’ পরিবারের অন্তর্গত এই ফলের অনেক ধরনের গুণাগুণ রয়েছে।

ভিটামিন সি-তে ভরপুর ব্লেকবেরিতে পুষ্টিগুণ অসীম। এই ফলের ১০০ গ্রাম থেকে প্রায় ২০ মিনিগ্রাম বা ৩৫ শতাংশ ভিটামিন-সি পাওয়া যায়, খুব কম ক্যালোরিযুক্ত ও সোডিয়ামে সমৃদ্ধ ফলটি শরীরের পক্ষে খুব উপকারী। প্রধাণত উত্তর আমেরিকায় জন্ম এই ফলের, আর প্রশান্ত মহাসাগরের উপকূল ধরে এবং ইউরোপে ব্ল্যাকবেরির চাষ করা হয়। টক-মিষ্টি কালচে বেগুনি ধরনের এই ফলের সোজা দাঁড়িয়ে থাকা লম্বা গাছগুলিতে ঝাঁকে ঝাঁকে ব্ল্যাকবেরি জন্মায়। মূলত শীত প্রধাণ দেশে এই ফলের চাষ হতে দেখা যায়। ফুলগুলিও নানা রঙের হয়। যেমন- সাদা, গোলাপি এবং লাল, যা থেকেই কালো এবং লালচে পার্পেল রঙের ফলগুলির উৎপত্তি হয়।

বিভিন্ন প্রকারের মোট দশ হাজার ব্ল্যাকবেরির হাইব্রিডস্‌ বর্তমানে পাওয়া যায়। তবে এই ফলটি প্রধানত বিদেশে প্রাপ্ত হলেও হিমালয়ান ব্ল্যাকবেরিও প্রাচ্যে বিস্তারলাভ করছে। আয়রন, ভিটামিন-সি ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ ব্ল্যাকবেরি ফলটি সাধারণত টাটকা ও তাজা খাওয়াই প্রচলিত প্রথা।

আমরা যা খাই আমাদের ত্বকে তারই বহিঃপ্রকাশ ঘটে। যদি আমাদের প্রতিদিনের খাবারে ভিটামিন সমৃদ্ধ ফলের আধিক্য থাকে তবে ত্বকেও তার প্রভাব পড়ে। ত্বক হয়ে ওঠে উজ্জ্বল, কোমল ও মোলায়েম। ব্ল্যাকবেরি এমনই একটি ফল যা ভিটামিন এ এবং সি-তে ভরপুর। এছাড়াও এতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের পরিমাণ ব্লু-বেরি বা স্ট্রবেরির থেকে অনেকটাই বেশি থাকে। এই সব গুণাগুণের জন্য ব্ল্যাকবেরি ত্বকের পক্ষে খুব উপকারী।

আঘাত থেকে রক্ষাঃ

ব্ল্যাকবেরির পাতাতে অ্যাস্ট্রিনজেন্টের গুণাবলি এতটাই বেশি যে শরীরের কোথায় রক্ত জমে গেলে, স্কিন সংক্রান্ত দাদ বা সোরিয়াসিস জাতীয় রোগ হলে ব্ল্যাকবেরি পাতা পেস্ট করে লাগালে উপকার পাওয়া যায়।

দাঁতের ক্ষয়রোধ করেঃ

দাঁতের গোড়া থেকে রক্ত বেরোলে সাধারণভাবে ব্ল্যাকবেরির পাতা ও ছাল লাগালে উপকার পাওয়া যায়। ব্যথা থেকেও রেহাই পাওয়া যায়।

ঋতুচক্রজনিত সমস্যায়ঃ

যাদের অত্যধিক ঋতুস্রাবের সমস্যা থাকে তারা ব্ল্যাকবেরি খেলে খুব উপকার পাবেন।

আমাশয়জনিত কারণেঃ

ব্ল্যাকবেরির পাতা এবং ফল উভয়ই ডায়েরিয়া দূর করতে সাহায্য করে। ফল বা পাতা ফুটিয়ে এর জল ছেঁকে খেলে উপকার পাওয়া যায়।

 

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes