jamdani

স্কিন কেয়ার উইথ অরেঞ্জ জুস

ভিন্ন ভিন্ন স্কিন টাইপের ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন ভাবে অরেঞ্জ ব্যবহার করা যেতে পারে। অরেঞ্জ জুস বা পাল্পের সঙ্গে বিভিন্ন উপকরণ মিশিয়ে বানানো ফেস প্যাক, কোনটা কোন ধরনের স্কিনের অধিকারীরা ব্যবহার করবেন, সে বিষয়ে বিশদে বলছি।

১) /২ কাপ অরেঞ্জ জুস আইস ট্রে- তে দিয়ে ফ্রিজে ভরে রাখুন। অরেঞ্জ আইস কিউব ঘষুন সারা মুখে। ৪-৫ মিনিট এটি করলে ইনস্ট্যান্ট গ্লো আসবে স্কিনে এবং স্কিন তরতাজা হয়ে উঠবে। এছাড়াও অরেঞ্জ পাল্প ম্যাসাজ করে মুখে মেখে ৫ মিনিট রেখে , জল দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

ফলাফলঃ

১। স্কিন রিফ্রেশ এবং রেজুভিনেট করে।

২। পিম্পল এড়াতে সাহায্য করে।

৩। স্কিনের অয়েলিনেস দূর করে।

৪। নিয়মিত ব্যবহারে স্কিন কমপ্লেকশন হালকা করে।

কাদের জন্য ভালোঃ

ড্রাই স্কিনের জন্য একেবারেই উপযুক্ত না। বাকিরা, বিষেশ করে অয়েলি স্কিনের জন্য খুব ভালো।

 

২) কয়েক ফোঁটা আমন্ড অয়েল, ১ চা-চামচ লেমন জুস, ১ টি ডিমের সাদা অংশ, ২ চা-চামচ অরেঞ্জ জুস  এবং ১/২ চা-চামচ মধু মশিয়ে নিন। মুখে লাগিয়ে রাখুন ২০-৩০ মিনিট। তারপর হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ফলাফলঃ

১। টেনিং, অ্য়ান্টি এজিং।

২। হানি ময়েশ্চারাইজিং কর।

৩। স্কিন রেজুভিনেট করে।

৪। অ্যাকনে নিয়ন্ত্রন করে।

কাদের জন্য ভালোঃ

এটি এমন একটি উপকরণ বা প্যাক যা সব ধরনের স্কিনের জন্যই উপকারী

 

৩) ১ টেবিল চামচ মধু, ২ টেবিল চামচ অরেঞ্জ জুস, ১ টেবিল চামচ মুলতানি মাটি এবং ২ চা-চামচ গোলাপ জল। প্রথমে মুলতানি মাটি গোলাপ জলে ভিজেয়ে রাখুন আধ ঘন্টা। ভালোভাবে ভিজে গেলে বাকি উপকরণ মিশিয়ে মিহি পেস্ট তৈরি করুণ। মুখে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জল এবং পরে ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন।

ফলাফলঃ

১। রিঙ্কলস দূর করে।

২। স্কিনে আনে গোল্ডেন গ্লো।

৩। ব্রাইটেনিং করে।

৪। স্কিন ট্যান দূর করে।

৫। ক্লিনজিং, টাইটেনিং, টোনিং অ্যান্ড ব্যালান্সিং করে।

কাদের জন্য ভালোঃ

সব ধরনের স্কিনের জন্যই খুব ভালো। তবে ড্রাই স্কিন বা কম্বিনেশন স্কিন হলে মূলতানি মাটি বাদ দেবেন। অয়েলি স্কিন হলে হানি বাদ দিতে পারেন।

 

৪) একটি অরেঞ্জের ১/৪ ভাগ জুস করে নিন। এর সঙ্গে মেশান গাজরের ১/৪ ভাগের জুস এবং শসার ১/৪ ভাগের জুস। মিশ্রণটিতে ১ চা-চামচ ভার্জিন কোকোনাট অয়েল অ্যাড কিরুন। পুরো মুখ এবং গলায় রাখুন ১০ মিনিট। ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন।

ফলাফলঃ

১। এই প্যাকের নিয়মিত ব্যবহারে স্কিনে স্কিনে এক্সট্রা গ্লো নিয়ে আসে।

কাদের জন্য ভালোঃ

সব ধরনের স্কিনের জন্য উপযুক্ত। তবে যাঁদের অয়েলি স্কিন তাঁরা কোকোনাট অয়েল বাদ দেবেন।

 

৫) ৪ টি আমন্ড, ৪ চা-চামচ অরেঞ্জ জুস, ২ চা-চামচ আমন্ড অয়েল এবং ১ চা-চামচ হলুদ বাটা মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন, মুখে ও গলায় লাগিয়ে রাখুন ৫-১০ মিনিট। এরপর প্রথমে ১ কাপ দুধ দিয়ে এবং পরে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ফলাফলঃ

১। স্কিন টোন এনহ্যান্স করে।

২। বিয়ের দিনের জন্য কনে বা বর তৈরি হতে পারে এই প্যাকটি নিয়মিত ব্যবহার করে।

কাদের জন্য ভালোঃ

সব ধরনের স্কিনের জন্য উপযুক্ত। বিষেশ করে ড্রাই স্কিনের জন্য খুব ভালো।

Trending


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes