jamdani

শতাব্দী প্রাচীন নাইফ মাসাজ করতে চান!

ছুরি দিয়ে মাসাজ! এতো ভয়ঙ্কর ব্যাপার। হ্যাঁ ব্যাপারটা অদ্ভুত শোনালেও এই কর্মকাণ্ডটি ঘটে তাইওয়ানে। আর শতাব্দী প্রাচীন এই কর্মকাণ্ড শুরু হয়েছিল আজ থেকে ২০০০ বছর আগে চীনে। ‘দাওলিয়া’ নামে এই নাইফ মাসাজ সেখানে বেশ জনপ্রিয়।

মাইন্ড রিফ্রেশিং এবং হিলিং করতে এই মাসাজ করতে রোজ প্রায় প্রচুর লোকই যায় এই থেরাপি নিতে। থেরাপিস্ট-দের কথা অনুযায়ী চাইনীজ এক সন্ন্যাসী প্রাচীন এই মাসাজ পদ্ধতি নিয়ে এসেছিলেন সামনে।

নাইফ থেরাপি নামে পরিচিত এই মাসাজ মাইন্ড হিলিং করতে দারুণ কাজ করে। চাইনীজ এই মাসাজ পক্রিয়া ২০০০ বছরের পুরোনো। এক থেরাপিস্ট এর কথা অনুযায়ী, এক চাইনীজ সাধু প্রাচীন চীন থেকে প্রথম নিয়ে এসেছিলেন এই পদ্ধতি।

আধুনিক জীবনে ব্যস্ততার পরিমান এতটাই বেড়ে গেছে, যার ফলে প্রায় সবাই বাড়ি ফিরে ক্লান্ত হয়ে যায়। চীনাদের মধ্যে এই নাইফ থেরাপি বেশ জনপ্রিয়। নাইফ মাসাজে মূলত ব্যবহার করা হয় ছুরি। একজন দক্ষ থেরাপিস্টের কাছে নাইফ থেরাপি হিলিং-এর কাজ করে। এই থেরাপি ওষুধ হিসেবে কাজ করে, যা ব্যাথা কমায় দ্রুত।

নাইফ থেরাপি নেওয়া এক ব্যক্তির বক্তব্য অনুযায়ী, প্রায় ৭০ মিনিটের এই থেরাপি তাঁর জীবন বদলে দিয়েছে। তাঁর মনে হচ্ছিল তাঁকে একটা প্লেটে সাজিয়ে রাখা হয়েছে। খাবার হিসেবে শুধু সার্ভ করা হবে। মজা করেই বললেন, আমি আমাকে তাঁর কাছে উৎসর্গ করে দিয়েছিলাম। এবার যা খুশি করো। আর এই নিয়ে তিনবার আমি নাইফ থেরাপি করলাম। যা আমার কাছে স্বর্গের মতো।

Trending


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes