jamdani

রহস্যময় এই আরশিনগরের কথা জানেন কি?

পৃথিবীর বিশালতম আরশিনগর অর্থাৎ আয়নাভূমির নাম জানা আছে! হ্যাঁ বাস্তবেই রয়েছে সেই আরশিনগর। যার নাম সালার দে ইউনানি। এর আয়তন প্রায় ১০ হাজার ৫৮২ বর্গকিলোমিটার। বিশাল এই আরশিনগর অবস্থিত দক্ষিণ পশ্চিম বলিভিয়ায়। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে এর অবস্থান ৩৬ হাজার ৫৬৫ মিটার উঁচুতে। এটি প্রকৃতির এক অপার বিস্ময়।

পুরো জায়গাটি তৈরি হয়েছে লবণ জমেই। আজ থেকে প্রায় ৩০-৪০ হাজার বছর আগে মিনচিন হ্রদের অংশ ছিল এই প্রাগৈতিহাসিক যুগের অংশ ছিল এই হ্রদ। এরপর হাজার বছর ধরে ধারাবাহিক পরিবর্তনে এই হ্রদের জল শুকিয়ে যেতে থাকে। হ্রদের নীচে জমা হওয়া লবণ ও লিথিয়াম জমাট বেঁধে ইউনানির সৃষ্টি হয়। এত বড়ো এই অঞ্চলটি পৃথিবীর সবচেয়ে বড়ো প্রাকৃতিক আয়না হিসেবে ধরা হয়। ডিসেম্বর থেকে মার্চ মাস অবধি এখানে বৃষ্টি হয়। সেই সময় এক অপূর্ব দৃশ্য তৈরি হয়। যেখানে আকাশ মাটিতে গিয়ে মেশে। বৃষ্টি কমে গেলে শুষ্ক মরসুমে লবণের মরুভূমিতে পরিনত হয়ে যায়। যার উপর দিয়ে যানবাহনও চলাচল করতে পারে।

প্রাকৃতিক সোউন্দর্য উপভোগের জন্য পর্যটকদের জন্যে রয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা এবং হোটেলও। যার মধ্যে ব্যতিক্রম হল প্যালাসিও দে স্যাল। যার অর্থ হল লবণের প্রাসাদ। তাহলে লবণের প্রাসাদে ঘুরে আসতে চাইলে চলে যান আরশিনগর বলিভিয়ার সালার দে ইউনানিতে।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes