jamdani

যে বাসের রুট ছিল লন্ডন টু কলকাতা

সুদূর লণ্ডনের সঙ্গে মিলিয়ে দিয়েছিল কলকাতাকে!

হ্যাঁ, এই বাস ছুটে আসে শহর কলকাতার বুকে। বাসটির নাম ‘অ্যালবার্ট’। ১৯৬৮ সালের কথা। যখন কলকাতা ছিল ক্যালকাটা।

শোনা যায়, অ্যান্ডি স্টুয়ার্ট নামে এক ব্রিটিশ পর্যটক রোমাঞ্চকর এই জার্নির কথা ভাবেন। আর যেমন ভাবা, তেমন কাজ। ১৯৬৮-র অক্টোবরে ১৩ জনের একটি দল নিয়ে এই বাসে চেপে  সিডনি থেকে সোজা হাজির হন তিলোত্তমার কাছে। পথের দূরত্ব ছিল ১৬,০০০ কিলোমিটার। মোট ১৩২ দিন পর যেটি লন্ডন পৌঁছয়। এভাবেই প্রথম তৈরি হয় পৃথিবীর সবথেকে লম্বা বাস রুট। জন্ম হয় ‘অ্যালবার্ট’এর।

সত্তর-এর দশকে বেশ জনপ্রিয় ছিল এই বাসটি। বাসের ভেতরে ছিল বিলাসবহুল বন্দোবস্ত। আর সেই বাসে উঠতে গেলে মোটা টাকা গুনতে হতো যাত্রীদের। সেইসময় অনুযায়ী যা ছিল ৮৫ পাউন্ড। আর তাই যাত্রীর সংখ্যাও ছিল কম।

তবে হ্যাঁ, অ্যালবার্ট-এ উঠলে যাত্রীরা সাক্ষী থাকত সুন্দর অ্যাডভেঞ্চারের। ১৫০টি সীমান্ত পেরিয়ে অ্যালবার্ট আসত কলকাতায়। আর এই বাস সবার কাছেই ‘বন্ধুত্বের দূত’ হিসেবেই পরিচিত ছিল।

কলকাতা আর লন্ডনের মধ্যে মোট চারটে ট্রিপ হলেও , সিডনি থেকেও চারটে ট্রিপ

তবে ‘অ্যালবার্ট’এ উঠলেই যাত্রীরা সাক্ষী থাকতে এক অদ্ভুত অ্যাডভেঞ্চারের। মোট ১৫০টি সীমান্ত পেরোত অ্যালবার্ট, তবে সমস্যা হয়নি কোনো। সবার কাছে ‘বন্ধু–দূত’ বলেই পরিচিত ছিল সে।

এই দীর্ঘ পথের যাত্রা ছিল ১৯৭৬ সাল পর্যন্ত। এরপর যাত্রা থেমে গেলেও, ইতিহাসের চ্যাপ্টারে আজও অমলিন রয়েছে অ্যালবার্ট-এর যাত্রার কাহিনী।

 

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes