jamdani

মায়ের উপর রাগ, বাড়ির নিচে আস্ত সুড়ঙ্গ বানিয়ে ফেলল যুবক!

আমাদের মা-বাবা কিছু করতে বারণ করলে সেই নিয়ে তুমুল অশান্তি সবারই হয়। আর তরুণ বয়সে বাবা মা একটু সংবেদনশীল হয়। কিন্তু এই যুবক এতটুকু অমত সহ্য করতে পারে না। স্পেনের আলিকান্তের, আনদ্রেস কান্তোর বিষয়টা একটু আলাদা। এই যুবক অভিমানী হওয়ার পাশাপাশি তুখোড় গায়ের জোর আর প্রতিভারও অধিকারী। যার ফল স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে বাড়ির বাগান লাগোয়া ১১ ফুট গভীর সুড়ঙ্গের ভেতর।

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া বিবৃতিতে কান্তো জানিয়েছে যে সে বড়ো হয়ে অভিনেতা হতে চাইত। এই এক স্বপ্ন দেখে তাঁর মা-বাবাও। শুধু একটি বিষয়ে মায়ের সঙ্গে তুমুল ঝগড়া হত, তাঁর মা উটকো পোশাক পরে বন্ধুদের সঙ্গে কান্তোকে বাইরে যেতে দিতেন না। ওদিকে কান্তোও দারুণ জেদি, তিনি সব সময় সেজেগুজে থাকবে না। যার পরিণামে মা কথা না শুনলে বন্ধুদের সঙ্গে ঘোরাঘুরি করতে দিতেন না, আটকে রাখতেন বাড়িতে।

কান্তো কিন্তু আর অন্য যুবক-যুবতীর মতো ঘর বন্ধ করে দেননি, বরং হাতে তুলে নিয়েছে কোদাল! তার পর মায়ের উপর রাগটা অন্য খাতে বইয়ে দেওয়ার জন্য শুরু করেছিলেন মাটি খোঁড়া। এক সময়ে ব্যাপারটা তাঁর নেশায় পরিণত হয়ে যায়। দেখতে দেখতে বছর ১৪-র এই তরুণ একা হাতে ৫ ফুট গভীর একটি সুড়ঙ্গ খুঁড়ে ফেলেন বাগানের নিচে। এক সময় তাঁর মনে হয়- এটি ফেলে না রেখে বাঙ্কারে পরিণত করে থাকার জায়গায় বদলে ফেলা যায়!

এরপর কান্তোকে একা কোদাল চালাতে হয়নি, পাশে পেয়েছিলেন বন্ধু আন্দ্রিউকে। দুই বন্ধু মিলে এর পর খুঁড়ে ফেলেন ১১ ফুট গভীর সুড়ঙ্গ, তার দেওয়ালের গায়ে খুঁড়ে দেন তাক, তৈরি করেন সুড়ঙ্গে নামার সিঁড়িও। সেখানে একটি বিছানা, স্টিরিও সিস্টেম, ওভেন আর ওয়াই-ফাই কানেকশন ইনস্টল করে তাঁরা। কাজ অবশ্য এখনও বাকি রয়েছে। এখন কান্তোর ইচ্ছে সুড়ঙ্গে জাকুজি বসানোর, যাতে স্নানের জন্য আর তাঁকে উপরে যেতে না হয়!

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes