jamdani

ঠিক যেন জ্বলন্ত ‘অগ্নিভূমি’

কয়েক হাজার বছর ধরে এমন গ্যাসের আগুন জ্বলছে। প্রখ্যাত পরিব্রাজক মার্কো পোলো ত্রয়োদশ শতাব্দীতে দেশ ভ্রমণের সময় এই রহস্যময় ঘটনা সম্পর্কে লিখেছিলেন। এরপর থেকে এই পথে যাতায়াতকারী অন্যান্য ব্যবসায়ীরাও এই খবর প্রকাশ করায় আজারবাইজানকে সবাই চিনতে শুরু করে ‘অগ্নিভূমি’ হিসেবে।

ইয়ানার দ্যাগ- যার অর্থ হল ‘জ্বলন্ত পর্বতমালা’। আজারবাইজানে প্রচুর প্রাকৃতিক গ্যাস মজুত থাকায়, এখানে সবসময় আগুন জ্বলতে দেখা যায়। এমনকি কথিত আছে যে এখানে আগুন প্রায় চার হাজার বছর ধরে জ্বলছে, থামেনি একবারও

এশিয়ায় অবস্থিত আজারবাইজানের মাটির নিচে প্রাকৃতিক গ্যাসের সম্ভার রয়েছে এখানে। আর তাই মাঝে মাঝে ভূপৃষ্ঠ গ্যাসের চাপে গর্ত হয়ে যায়। এরপর সেই গ্যাস থেকেই আগুনের শিখা জ্বলতে থাকে। আর এর মধ্যে অন্যতম একটি জায়গা হ ইয়ানার দ্যাগ, খুব সুন্দর এই জায়গাটি দেখতে দেশ-বিদেশের ভ্রমণকারীদের ভিড় লক্ষ্য করা যায়। তারা একই সঙ্গে মুগ্ধ ও ভীত হয়ে ওঠে।

একটা সময় পুরো আজারবাইজান জুড়েই বিভিন্ন স্থানে এরকম আগুনের দেখা মিলত। তবে আগুন জ্বলতে জ্বলতে ভূগর্ভস্থ গ্যাসের চাপ কমে যাওয়ায় এবং বাণিজ্যিকভাবে গ্যাস উত্তোলনের কারণে এখন এর পরিমাণ কমেছে।

বিশেষ করে শীতকালে এবং রাতে এই জায়গাটির সৌন্দর্য বেড়ে যায়। এই জায়গায় বরফ মাটিতে পড়ার সময় সেগুলো মাটি স্পর্শ না করে বাতাসেই মিলিয়ে যায়।

অনেকের মতে ইয়ানার দ্যাগের শিখা বেশ প্রাচীন। অনেকেই বলেন, ১৯৫০ এর দশকে এটি জ্বলতে শুরু করে। আজারবাইজানের রাজধানী বাকু থেকে উত্তর দিকে প্রায় ১৬ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ইয়ানার দ্যাগ। শুধু একটা ছোট ক্যাফে ছাড়া এখানে তেমন কিছুই নেই।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes