jamdani

জেনে নিন শুষ্ক ত্বকের মেকআপ কীভাবে করবেন!

FLAWLESS স্কিন কার না পছন্দের। সিনেমার পর্দায় হোক বা বিজ্ঞাপনে অ্যাক্ট্রেসদের কী সুন্দরই না লাগে মেকআপ করে। কিন্তু আপনার হয়ত মনে হয়, আপনার মেকআপটা কেন সঠিকভাবে বসে না। ছবি তোলার সময় অত্যধিক ফর্সা লাগে অথবা বোঝা যায় যে ভুল মেকআপ করেছেন। আর তার উপরে যদি হয় শুষ্ক ত্বক। তাহলে আরও বেশি মুশকিল। আজ তাই আপনাদের জন্যে নিয়ে এসেছি শুষ্ক ত্বকে কীভাবে মেকআপ করা উচিৎ।

স্ক্রাবিং

ড্রাই স্কিনে আপনি যত সুন্দর করেই মেকআপ করুন না কেন, ত্বক কেমন খসখসে দেখতে লাগে। তাই মেকআপ করার আগে ত্বক পরিষ্কার করা খুব প্রয়োজন। প্রথমে মাইল্ড স্ক্রাব দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন, স্কিনের মরা কোষগুলি উঠে গেলে ত্বক নরম হবে। তাই ত্বক এক্সফোলিয়েট করাটা খুব প্রয়োজন, না হলে কিন্তু মেকআপ বসবে না।

ময়শ্চারাইজার এবং সানস্ক্রিন

স্ক্রাবিং করার পর স্কিনের আর্দ্রতা রক্ষা করতে ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। কোনও ঘন ময়শ্চারাইজার ভাল করে মুখে লাগিয়ে নিন, এমন ভাবে লাগাবেন, যেন তা ত্বকে মিশে যায়। দিনের বেলা বেরোতে হলে মেকআপ করার আগে ক্রিম-বেসড কোনও ভাল সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন, যাতে ত্বকের গভীরে পৌঁছতে পারে।

প্রাইমার

ড্রাই স্কিনে মেকআপ করার জন্য শুধুমাত্র ময়শ্চরাইজার বা সানস্ক্রিনই যথেষ্ট নয়, ক্রিম-বেসড প্রাইমারও লাগিয়ে নিন। ত্বক মসৃণ হবে। মসৃণ ত্বকে যতটা সহজে মেকআপ বসতে পারে, খসখসে ত্বকে কিন্তু একদমই মেকআপ বসতে পারে না। তাই ত্বকের উপরিভাগ মসৃণ করাটা খুব জরুরি।

ক্রিম-বেসড ফাউন্ডেশন

সঠিক মেকআপের বেস হল ফাউন্ডেশন। তাই ফাউন্ডেশন যখন বাছবেন মনে করে ক্রিম-বেসড ফাউন্ডেশনই বাছবেন। পাউডার-বেসড ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে তা ঠিকভাবে ব্লেন্ড তো হবেই না, উল্টে অতিরিক্ত মেকআপ মনে হবে।

ব্লাশ-আইশ্যাডো-লিপ্সটিক যেন হয় ক্রিম বেসড

যেহেতু শুষ্ক ত্বক, তাই ব্লাশ থেকে শুরু করে লিপস্টিক, সব প্রোডাক্টই যেন হয় ক্রিম বেসড, সেদিকে খেয়াল রাখুন। পিচ অথবা হালকা ব্রাউন শেডের ব্লাশ লাগান। এই শেডদুটি সব সময়েই ব্যবহার করা যায়। আইশ্যাডোর ক্ষেত্রেও রঙ এবং শেড মাথায় রাখুন। স্মোকি আইজ করতে হয়, তা হলে গাঢ় শেড বাছুন।

ড্রাই স্কিনের ক্ষেত্রে শুধু মুখ নয়, ঠোঁটের চামড়াও শুষ্কই হয়। আর তাই এমন লিপস্টিক ব্যবহার করবেন না যাতে ঠোঁট আরও বেশি শুষ্ক দেখায়। যদি আপনি ম্যাট ফিনিশ লিপস্টিক পছন্দ করেন, তা হলে এমন প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন যাতে ক্রিম বা অয়েল রয়েছে। ঠোঁটে একটু ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে তার উপরে ফাউন্ডেশন লাগিয়ে নিন এবং তারপরে লিপস্টিক লাগান। এতে ঠোঁট শুষ্ক দেখাবে না এবং ঠোঁটের ড্রাইনেসও বোঝা যাবে না।

তাহলে জেনে নিলেন তো ড্রাই স্কিনের  মেকআপ কীভাবে করবেন। বিশদে জানতে নিচে দেওয়া লিংক-এ ক্লিক করুন আর সুন্দর ফ্ল-লেস স্কিনের অধিকারিণী হন।

Trending


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes