jamdani

ছোট্ট তিতলির পাশে এবার দেব

দেব যখন পাশে, তখন ভাবনা কিসের? বাবার চিকিৎসার খরচ জোগাতে পারছে না পরিবার। কঠিন পরিস্থিতিতে বাবাকে বাঁচাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেদন ছোট্ট মেয়ে তিতলির। তারপরেই নিমিষেই সমস্যার সমাধান।
নিজের সাধ্যমতো সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন এই সুপারস্টার।চুঁচুড়া অন্তার বাগানের একটি ভাড়া বাড়িতে থাকেন সন্দীপ দত্ত, সঙ্গে তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে। গত তিন বছর ধরে তাঁর এই শারীরিক অসুস্থতা। পেশায় তিনি সেলসম্যান। প্রথমে তার প্যানক্রিয়াসের সমস্যা ধরা পরে। হাই সুগার থাকায় কিডনি আর লিভারে এফেক্ট করে। ব্যাঙ্গালোরে গিয়ে চিকিৎসা করানোর চেষ্টা করেন। প্যানক্রিয়াস অপারেশন করাতে সারে ছয় লক্ষ টাকা খরচ , তাই টাকার অভাবে ব্যাঙ্গালোর থেকে ফিরে আসেন সন্দীপ বাবু। কিছু মানুষের সাহায্য পাওয়ার পর গত মার্চ মাসে হায়দ্রাবাদে চিকিৎসা করাতে যান। অস্ত্রোপচার করালেও সুস্থ হওয়ার কোনও নিশ্চয়তা নেই বলে জানিয়ে দেয় হাসপাতাল কতৃপক্ষ। কলকাতায় ফিরে আসেন তাঁরা। কলকাতার শিশু মঙ্গল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। হাই সুগার থাকায় কোমরের নীচে ইনফেকশান হয়ে যায়। ফের করাতে হয় অস্ত্রোপচার। বর্তমানে বিছানায় শয্যাশায়ী তিনি। সংসারে দু বেলা দুমুঠো অন্ন তুলে দেওয়ারও নেই কেউ, ওষুধ কেনাও কঠিন হয়ে গিয়েছে তাঁর স্ত্রী মুনমুন দেবীর কাছে। আর তখনই সোশ্যাল মিডিয়ার দেওয়াল ছোট্ট মেয়েটির আর্তি শুনে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন তিনি। তাঁর এই উদারতা আবারও এটাই প্রমান করলো যে, মানুষ সুপারস্টার হয়ে ওঠে তখনই যখন তাঁর মানবিক চেতনা জাগ্রত হয়।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes