jamdani

একরত্তি খুদে নাকি স্পাইডার ম্যান, ভাইরাল ভিডিও

দেওয়ালের পিলারে ওঠার চেষ্টা করেও পারছিল না বছর সাতের ক্ষুদে শিশু। কিন্তু হাল ছাড়েনি। অবশেষে পিলারের শেষ প্রান্তে ওঠে এবং সাবলীলভাবে মাটিতে নেমেও আসে। ক্ষুদে শিশুর এই ভিডিও দেখে রীতিমতো বিস্মিত নেটদুনিয়া।

আরাত হোসেইনি নামে ওই শিশু লিভারপুল অ্যাকাডেমির ফুটবলার। ভাইরাল ওই ভিডিওতে দেখা যায়, প্রথমে শিশুটি দেওয়ালের পিলার বেয়ে উঠতে পারেনি। সে বার বার চেষ্টা করে গেছে এবং অবশেষে একেবারে পিলারের মাথায় বেয়ে উঠতে পেরেছে। তবে শুধু তাই নয়, পিলার থেকে মাটিতে নিরাপদে নেমেও আসে। ট্যুইটারে এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন আইএএস অফিসার এম ভি রাও। যিনি ক্ষুদে আরতকে তাঁর ‘গুরু’ বলে ডেকেছেন।

এই ভিডিওটি ২০১৮ সালে আরতের নিজস্ব পেজে শেয়ার করা হয়েছিল। এর পর গত ২৭ মে মাইক্রোব্লগিং সাইটে আবার ভিডিওটি দেওয়া হয়। সঙ্গে সঙ্গেই ভাইরাল হয়ে পড়ে। কিছু সময়ের মধ্যে ভিডিওতে ১০,০০০ ভিউ আর ১৫০০০ লাইক পরে যায়। শিশুটির প্রশংসায় ভরে যায় নেটদুনিয়া। এক একজন নেটিজেন এক এক রকমভাবে গুণগান করেন। কেউ কেউ শিশুটিকে ‘চ্যাম্পিয়ান’, ‘সুপার বেবি’ বলেও সম্বোধন করেন।

তবে এই প্রথমবার ক্ষুদে শিশু সকলকে অবাক করেনি। এর আগেও, তার এক্সারসাইজ করার কিংবা স্টান্ট করার ভাইরাল ভিডিও দেখে বিস্মিত হয়েছিল নেটদুনিয়া। সম্প্রতি তার ফুটবল খেলার ভিডিওর অংশ দর্শককে আকর্ষণ করে। আরতের ইনস্টাগ্রাম-এ তাকে অনুশীলনের সময় বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে ফুটবল পাস করতে দেখা যায়। ভিডিওটি মাত্র ২১ ঘন্টায় ২.৪ লাইকে পৌঁছেছে। শিশুটির প্রতিভা  দেখে নেটিজেনরা কমেন্ট করা থেকে নিজেদের আটকে রাখতে পারেননি।

মূলত, আরতের ইনস্টাগ্রাম যিনি পরিচালনা করেন, তিনি এই ধরনের বিভিন্ন ক্লিপ শেয়ার করেছেন যেখানে ক্ষুদে শিশুটিকে এরকম আরও বিস্ময়কর কাজ করতে দেখা যায় মাঝে মাঝেই।

Trending

Most Popular


Would you like to receive notifications on latest updates? No Yes